দেশের বিমানবন্দরগুলো দিয়ে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটের বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ ১৪ এপ্রিল থেকে বৃদ্ধি করে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত করা হতে পারে। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে একটি নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। কিন্তু এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া হয়নি। তবে চীনের ফ্লাইটগুলো এই নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

এনিয়ে তৃতীয় দফায় নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়াতে যাচ্ছে বাংলাদেশ বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। বেবিচকের দায়িত্বশীল সুত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। শনিবার বিকেলেই এ বিষয়ে একটি আদেশ জারি করতে পারে বেবিচক।

এ বিষয়ে বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান বলেন, সরকার ইতোমধ্যে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করেছে। আমরাও ফ্লাইট চলাচলের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বৃদ্ধির পরিকল্পনা করছি। আমরা ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ফ্লাইট চলাচল বন্ধ রাখার বিষয়ে আলোচনা করেছি। প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নিয়ে আমি সংশ্লিষ্টদের মন্তব্য চেয়েছি। সব পক্ষের মতামত পাওয়ার পর বিকেলে বিষয়টি জানিয়ে দেয়া হবে। তবে চীনের ফ্লাইট, বিশেষ ফ্লাইট এবং কার্গো ফ্লাইটগুলো এই নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

এর আগে করোনাভাইরাসের কারণে ২১ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত যুক্তরাজ্য, চীন, হংকং, থাইল্যান্ড ছাড়া সব দেশের সঙ্গে যাত্রীবাহী সব বিমান সংস্থার ফ্লাইট চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেয় বেবিচক। এরপর আরেকটি আদেশে এই সময়সীমা আরও সাত দিন বাড়িয়ে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছিল। সর্বশেষ এই নিষেধাজ্ঞা ১৪ তারিখ পর্যন্ত বাড়ানো হয়।